Breaking News

রংপুরে গাছের স’ঙ্গে বেঁ’ধে মা মেয়ে নির্যাতনের (ভিডিও ভাইরাল)

রংপু,রের পী,রগাছা উপ,জেলায় মা ও মেয়েকে, গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। সেই নির্যা,তনের ভিডিও সামা,জিক যোগা,যোগমা,ধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। এ নিয়ে বিভিন্ন মহ,লে আলোড়,ন শুরু হলেও ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়েছে অভিযুক্তরা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জমি-সংক্রা,ন্ত বিরোধের জের ধরে মা ও মেয়েকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করেছে প্র,তিপক্ষে,র, লোকজন।,,,শু,ক্রবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে এই নির্যাত,নের ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

নির্যাতনের শি,,কার গোলা,পী বেগম ও মেয়ে রাবেয়া বেগম পারু,ল ইউনি,য়নের অ,নন্দি ধনি,রাম গ্রামের শাজাহান মিয়ার স্ত্রী,-কন্যা। ঘটনার দুদিন পর শুক্রবার দুপুরে নির্যা,তনের ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ হলে তা ভাইরা,,ল হয়ে যায়।

গে,ল বুধ,বার (১২ জানুয়ারি), উপজে,লার, পারুল ইউনি,য়নের অনন্দি ধনিরাম গ্রামে মা-মেয়েকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাত,নের ঘট,না ঘটে। পরদিন বৃহ,স্পতিবার এ ঘ,টনায় ১৭ জনকে অভি,যুক্ত করে পীরগাছা, থানায় একটি মামলা করেন বাদী শাজা,হান মিয়া।

কিন্তু আসা,মিরা প্রভা,বশালী হওয়া,য় এখন পর্যন্ত কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বলে অভি,যোগ করেছেন শাহজাহান। তিনি এ নির্যা,তনের ঘ,টনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করে,ছেন।,মাম,লার এ,জাহার সূত্রে জানা যায়, অনন্দি ধনিরা,ম গ্রামের সুজা মিয়ার ছেলে শাজাহান মিয়ার সঙ্গে

প্রতি,বেশী গাফ্ফার মিয়া,র ছেলে জিয়ারু, মিয়া,র জমি জ,মি-সং,ক্রান্ত, বিরো,ধ চলে আসছিল। বুধবার সকালে জিয়ারু ও তার লোক জন শাজাহানের জমি দখল করে গাছ ও রাস্তা কাট,তে শুরু, করে তাতে বাধা দেন শাজাহান ও তার পরি,বারের লোকেরা।

এতে ক্ষি প্ত, হয়ে, জিয়ারু ও তার সহযো,গীরা গোলাপী বে,গম ও রাবেয়া বেগ,মকে গাছে,র সঙ্গে বেঁ,ধে নির্যাতন চালা,ন। পরে স্থানীয়রা ৯৯৯ নম্বরে কল করলে পীরগাছা থা,না পুলিশ ঘটনাস্থল এসে ভুক্তভোগী মা-মে,য়েকে উদ্ধা,,র করে উপ,জেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায়। তারা এখনো সেখানে চিকি,ৎসাধীন।

এ বিষয়ে শাজা,হান মিয়া জানান, প্রতি,বেশী জিয়ারু ও তার লোক,জন জমি দখলে ব্যর্থ হয়ে তার স্ত্রী-স,ন্তানকে গাছের স,ঙ্গে বেঁধে নি,র্যাতন, চালা,য়। থানায় অভিযোগ দা,,য়ের হ,লেও আসা,মিরা প্রভা,বশালী হওয়ায় এখন পর্যন্ত কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

স্থানী,য় ইউ,পি সদ,স্য আ,ব্দুল খালে,ক ঘট,নার সত্যতা নিশ্চি,ত করে জা,নান, মা-মেয়ে,কে গাছে,র সঙ্গে বেঁধে নি,র্যাতনে,র বিষয়টি আমি শুনেছি। ভুক্ত,ভো,গীদের আ,ইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার, পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

পীর,গাছা, থানা পুলি,শের পরিদর্শ,ক (তদন্ত,,) আব্দুস শুকুর মি,য়া ব,লেন, ভাইরা,ল ভিডি,ওটিসহ পুরো ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হ,চ্ছে,। ইতো,মধ্যে ঘট,না,স্থল পরি,দর্শন করা হয়েছে। এজাহা,রভু,ক্ত ব্য,ক্তি,দের বিরু,দ্ধে আইন,গত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।সূত্র:Rtv

Leave a Reply

Your email address will not be published.